1. admin@sahas24bd.com : sahas24bd : Ahsan Ullah
বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলেও অর্থাভাবে পড়ালেখা অনিশ্চিত বিদ্যুতের দায়িত্ব নিলেন মুঞ্জু হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্ণধার ডাঃ মিঠুন কুমার - sahas24bd
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৩৪ অপরাহ্ন
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৩৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
শিক্ষার্থী আদনান তাসিন হত্যাকাণ্ডের বিচারহিনতার ৩ বছর ভাইরাল হয়নি, তাই বিচার পাইনা [১] নারী এশিয়া কাপে আজ মুখোমুখি বাংলাদেশ-পাকিস্তান [১] ভক্তদের পদচারণায় মুখর মণ্ডপ, মহাঅষ্টমী ও কুমারী পূজা আজ [১] যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পেলেন পূজা চেরী, একই সময়ে যাচ্ছেন শাকিব খান [১] বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে টহল জোরদার [১] হিন্দু সম্প্রদায়কে দুর্গাপূজার শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এমপি এনামুল হক [১] টেকসই উন্নয়নে সরকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ [১] শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু, আজ মহাসপ্তমী [১] বাংলাদেশে বাড়তে পারে বৃষ্টি কমবে তাপমাত্রা [১] ভোট ডাকাতির জন্যই ব্যালট চায় বিএনপি: ওবায়দুল কাদের [১] দুর্গাপূজা উপলক্ষে মাহমুদকাটী সার্বজনীন পুজা মন্দিরে বস্ত্র বিতরণ ও আলোচনা সভা

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলেও অর্থাভাবে পড়ালেখা অনিশ্চিত বিদ্যুতের দায়িত্ব নিলেন মুঞ্জু হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্ণধার ডাঃ মিঠুন কুমার

তন্ময় দেবনাথ রাজশাহী জেলা প্রতিনিধিঃ-
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৪৭ বার পঠিত

আড়ানীর ছেলে বিদ্যুৎ বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার পরে ও অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে ভর্তি হতে না পারায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন মঞ্জু হাসপাতাল এবং মঞ্জু ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিঠুন কুমার তার ভর্তির ব্যবস্থা ও লেখাপড়ার পাশাপাশি তার পার্ট টাইম একটা জবের সু-ব্যবস্থা করে দেবার দায়িত্ব নেন। মুঞ্জু হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ মিঠুন কুমার বলেন, সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছায় এমন একটা ভালো কাজে যুক্ত হতে পেরে অনেক ভালো লাগলো। এমন ভালো কাজে সমাজের বৃত্তবানরা এগিয়ে আসলে সমাজে আর সমস্যা থাকতো না। আড়ানী পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান নাইম খান বলেন বাঘা উপজেলার সুনামধন্য একটি প্রতিষ্ঠান মুঞ্জু হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। মিঠুন কুমার সব সময় ই ভালো কাজের পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকেন। মিঠুন দাদার অকৃত্রিম সহযোগিতায় একটি মেধাবী ছাত্র এবং তার পরিবার মুখে হাসি ফোটানোর জন্য তিনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়া বিদ্যুৎ কুমার দাস বলেন, আর্থিক অনটনের মধ্যেও নিজের ইচ্ছা শক্তি আর সবার আশির্বাদে এ পর্যায়ে পোঁছাতে পেরেছি। কিন্তু আমার পরিবারের পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির টাকা জোগাড় করা কষ্টকর হচ্ছিল। বিষয়টি জানার পর বাঘা মুঞ্জু হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিঠন কুমার আমাকে ভর্তির টাকা দিয়ে সহযোগিতা করায় আমি অত্যন্ত খুশি এবং কৃতজ্ঞ। সহযোগিতার সময়ে উপস্থিত ছিলেন বাঘা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুল লতিফ মিঞা, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, অর্থ সম্পাদক লালন উদ্দিন, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ কমিটির সভাপতি সুজিত কুমার বাকু পান্ডে, আড়ানী পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান নাইম খান, আড়ানী ব্লাড ব্যাংকের সভাপতি আশিক, বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাপ্ত বিদ্যুৎ কুমারের বড় ভাই পরিমল কুমার প্রমুখ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved sahas24bd© 2019-2022
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting